যৌন ও স্ত্রীরোগ, চর্মরোগ, কিডনি রোগ, হেপাটাইটিস, লিভার ক্যান্সার, লিভার সিরোসিস, পাইলস, IBS, পুরাতন আমাশয়সহ সকল ক্রনিক রোগে হোমিও চিকিৎসা নিন। ডাঃ হাসান, আধুনিক হোমিওপ্যাথি, যাত্রাবাড়ী, ঢাকা। ফোন করুন:- ০১৭২৭-৩৮২৬৭১

বুধবার, ১৩ আগস্ট, ২০১৪

অঙ্কশাস্ত্র জন্ম-মাস দেখে মানুষের স্বভাব-চরিত্রের ধারণা দেয়

অঙ্কশাস্ত্র মতে একজন মানুষের স্বভাব, চরিত্র নাকি তার জন্ম মাস বিচার করে জানা যায়। কোন মাসে জন্মালে, কেমন হবে তার চারিত্রিক গুনাবলী এই গুলো নাকি সংখ্যাতত্ত্ব বিচার বিশ্লেষণ করেও বলা যায় ? এমনি কিছু বিশ্লেষণ নিচে দেয়া হলো।

জানুয়ারি:- আপনি স্বাধীন, নেতা এবং সবকিছুই বিচার-বিশ্লেষণ করেন। আপনি খুব সৃষ্টিশীল। আপনার ক্যারিসমা এতটাই যে, আপনাকে কোনও প্রশ্ন না-করেই অন্য ব্যক্তি আপনাকে অনুসরণ করেন। জীবনে সাফল্যের জন্য মহিলাদের তুলনায় পুরুষের সাহায্যই আপনি বেশি পান। অন্যের তুলনায় অনেক বেশি ঐতিহ্যশালী জীবনযাপন করেন। এঁরা জেদি, অ্যাম্বিশিয়াস। এঁরা শিক্ষাদান এবং শিক্ষালাভ ভালোবাসেন। এঁরা কোনও ব্যক্তির দুর্বলতার দিকে নজর দেন না। কঠোর পরিশ্রমী, সংবেদনশীল, অন্যকে খুশি করতে জানেন। সহজে উত্তেজিত হন না বা ঘাবড়ে যান না। বাচ্চা ভালোবাসেন। এঁরা সাধারণত অ্যালজাইমারে আক্রান্ত হন। 
অঙ্কশাস্ত্র জন্ম-মাস দেখে মানুষের স্বভাব-চরিত্রের ধারণা দেয়
ফেব্রুয়ারি:- আপনারা অন্যের মনের কথা সহজে জেনে নেন এবং অন্যের সঙ্গে মিশে যান। সমস্ত সম্পর্কই আপনার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। নিজের মনের মানুষকে খুঁজতে আপনি সারা জীবন ব্যয় করতে প্রস্তুত। নিজের মনের মানুষ না-পেলে আপনি ভেঙে পড়তে পারেন। আপনারা ভালো অভিভাবক। বাস্তবতাকে ভালোবাসেন, বুদ্ধিমান, চালাক, আকর্ষণীয়, সেক্সি, রাগী, শান্ত, লাজুক, সত্‍‌। লক্ষ্যে পৌঁছতে বদ্ধপরিকর। স্বাধীনতাপ্রেমী, বাধাপ্রাপ্ত হলে বিপ্লবী হয়ে পড়েন। অত্যন্ত সংবেদনশীল এবং সহজে আঘাত পেয়ে যান। সহজে রেগে গেলেও, তা সকলের সামনে প্রকাশ করেন না। সাহসী, জেদি, মনোরঞ্জনপ্রেমী, বিলাসবহুল জীবনযাপন পছন্দ করেন। মন থেকে রোম্যান্টিক, কিন্তু তা প্রকাশ করতে পারেন না। কুসংস্কারী। এই মাসে যাঁদের জন্ম, তাঁরা শিল্পী হয়ে থাকেন। আপনাদের ঘুমে প্রায়ই ব্যাঘাত ঘটে। ৯-৫টার চাকরি আপনাদের জন্য নয়। 

মার্চ:- আপনি সঠিক সময়ে সঠিক স্থানে উপস্থিত থাকেন। প্রচুর অর্থের মালিক হন। কিন্তু খুব শিগগির সেই অর্থ হারিয়ে ফেলেন। আপনি কখনও বড় হয়ে উঠতে চান না, কিন্তু এটিই আবার মাঝেমধ্যে আপনাকে আরও বেশি ভালোবাসার যোগ্য করে তোলে। আপনার ব্যক্তিত্ব আকর্ষণীয়। আপনি সেক্সি, স্নেহশীল, লাজুক, স্বল্পভাষী, উদার, সহানুভূতিশীল, বিশ্বস্ত, মুডি, সঙ্গীতানুরাগী। শান্তি এবং নির্মলতা ভালোবাসেন। অন্যের জন্য কাজ করতে ভালোবাসেন। সহজে রেগে যান। স্বপ্ন দেখতে এবং নিজের কল্পনার জগত্‍‌ গড়ে তুলতে ভালোবাসেন। ভ্রমণপিপাসু। জীবনসঙ্গী/সঙ্গিনী খুঁজতে গিয়ে খুব দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। এঁরা সাধারণত অ্যাস্থমায় আক্রান্ত থাকেন। এঁরা স্কুলে খুব ভালো ফলাফল না-ও করতে পারেন। অনেক সময় এঁরা অস্বাভাবিক কেরিয়ার বেছে থাকেন। 

এপ্রিল:- আপনি জেদি, আবেগপ্রবণ এবং অন্যের ওপর কর্তৃত্ব ফলাতে ভালোবাসেন। অন্য দিকে আপনি খুব সৃজনশীল, সেক্সি, বুদ্ধিমান। আপনার ক্যারিসমায় অনেকে আপনার প্রতি আকৃষ্ট। তবে অন্যের ওপর অত্যধিক কর্তৃত্বফলানোর চেষ্টা করবেন না। একবার লক্ষ্য নির্ধারণ করলে, সেখানে পৌঁছনো থেকে কেউ আপনাকে আটকাতে পারবে না। সক্রিয় এবং গতিশীল, বিচারক্ষমতাসম্পন্ন, মানসিক দিক দিয়ে খুব শক্তিশালী, নজরকাড়তে পছন্দ করেন, কূটনীতিক, শান্ত্বনা দিতে পারেন, অন্যের সমস্যার সমাধান করতে পারেন সহজেই। আবার আপনি খুব দুঃসাহসিক, আক্রমণাত্মক, অনুভূতিপ্রবণ, লাভিং, কেয়ারিং, উদার এবং নরম মনোভাবাপন্ন। আপনাদের স্মৃতিশক্তি খুবই ভালো। মাথা এবং বুকের রোগে আক্রান্ত থাকেন। 

মে মাস:- জেদি, শক্ত-মনের, চিন্তা-ভাবনা খুবই প্রখর। সহজে রেগে যান। অনুভূতি খুবই গভীর। অন্যকে আকর্ষণ করতে পারেন। এঁদের মোটিভেশনের কোনও প্রয়োজন হয় না। সহজে শান্ত করা যায়। কান এবং গলায় সমস্যা থাকে। কল্পনাশক্তি ভালো। শারীরিক গঠন ভালো হয়। তবে শ্বাস-প্রশ্বাসে একটু সমস্যা হয়। সাহিত্য-শিল্প অনুরাগী। ভ্রমণপিপাসু, বাড়িতে থাকতে ভালোবাসেন না। পরিশ্রমী। এই মাসে যাঁরা জন্মগ্রহণ করেন, তাঁরা ডায়াবিটিস এবং গ্লুকোমায় আক্রান্ত থাকেন।

জুন:- খুব রোম্যান্টিক, কিন্তু খুব জেলাস। ভালো প্রেমী এবং সেনসুয়াল। আপনার ভালোবাসার জীবন অত্যন্ত জটিল। মানব-হিতৈষী এবং দয়ালু। গসিপ করতে ভালোবাসেন। আপনি বাচ্চা ভালোবাসেন না, তবে পরিবারের প্রবীণ সদস্যরাই আপনার কাছে সবকিছু। আপনারা খুব নম্র-ভদ্র, সংবেদনশীল। আপনার কাছে প্রচুর আইডিয়া থাকে। সবচেয়ে ভালোটিই আপনার চাই, আপনি খুব ব্র্যান্ড কনসিয়াস। জোকস ভালোবাসেন। তর্কশক্তি খুব ভালো। দিবাস্বপ্নে ব্যস্ত থাকেন। সহজে বন্ধু বানাতে পারেন, আবার সহজে আঘাতও পান। ঠান্ডার ধাত থাকে। মাঝেমধ্যেই নিজের আবেগ প্রকাশ করে থাকেন। হৃদয়ে আঘাত লাগলে, সেখান থেকে বেরিয়ে আসতে সময় লাগে।

জুলাই:- এই মাসে যাঁদের জন্ম তাঁরা সিনসিয়ার, পক্ষপাতহীন এবং সহানুভূতিশীল ব্যক্তি। পরিবারের প্রতি অত্যন্ত যত্নশীল। নিজের সম্বন্ধ রক্ষার জন্য তাঁরা অনেক দূর পর্যন্ত যেতে পারেন। এরা আবার রূঢ়প্রকৃতির এবং ব্যঙ্গ-বিদ্রুপও করে থাকেন। এদের স্বভাবের এই দিকটি অনেককে বিভ্রান্ত করে তোলে, বিশেষত তাঁদের, যারা এদের প্রতি যত্নশীল। আবার ড্রেসিং সেন্স এবং লাইফস্টাইল হ্যাবিটের ক্ষেত্রে এদের স্বভাব অনেকটা অদ্ভূত। এই মাসে যারা জন্মগ্রহণ করেন, তাদের মধ্যে অনেকে জিনিয়াস হয়ে থাকেন, তবে তারা অত্যন্ত সংবেদনশীল এবং বিষণ্ণতায় ভোগেন। আপনার সঙ্গে থাকতে যে কেউ ভালোবাসবে। কথা গোপন রাখতে পারেন। পরিশ্রমী, সত্, মুডি, রসিক, লাভিং-কেয়ারিং, একা থাকতে ভালোবাসেন এরা। ব্যক্তির অনুভূতিকে গুরুত্ব দেন, সহজে আঘাত পান, প্রতিশোধস্পৃহা নেই, সহজে ক্ষমা করে দিলেও, কখনও কিছু ভুলে যান না, খুব যত্নে বন্ধুত্ব গড়ে তোলেন, সকলের সঙ্গে সমান ব্যবহার করেন। এই মাসে যাদের জন্ম, তাদের দৃষ্টিশক্তি ক্ষীণ হয়ে থাকে।

আগস্ট:- আপনি লাভিং, বিয়েকে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন, সকলের ভালো দিকটিই দেখেন আপনি। তবে অত্যন্ত পরিশ্রমী হওয়ায় স্বাস্থ্যসংক্রান্ত সমস্যা দেখা দেয়। আপনার টিম স্পিরিট খুব ভালো। আবার আপনি মানবপ্রেমী এবং সহজে অন্যকে অনুপ্রাণিত করতে পারেন। আপনার কাছে টাকা খুব সহজে চলে আসে। আপনি খুব নরম প্রকৃতির, আকর্ষণীয়, সাহসী, অকুতভয়ো, লাভিং, কেয়ারিং। আপনার মধ্যে নেতৃত্বের গুণ রয়েছে। আপনি আবার উদার এবং আত্মবাদীও। উস্কানি পেলে সহজে রেগে যান, জেলাস, সজাগ থাকেন। আপনার চিন্তাভাবনা স্বাধীন এবং খুব তাড়াতাড়ি চিন্তাভাবনা করতে পারেন। স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসেন। সঙ্গীত, শিল্প-কলা এবং প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে প্রতিভাশালী। সংবেদনশীল, রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা অত্যন্ত দুর্বল।

সেপ্টেম্বর:- নিজের জীবনে বহুমুখী ভূমিকা পালন করতে হয় আপনাকে। কারণ আপনি বুদ্ধিমান। তবে আপনার দুর্বলতা হল, আপনি বিষণ্ণতায় ভোগেন। আপনি জয়ী হতে চাইলে, অনেক সময় নিজের মনের সমালোচকের ধ্বনি উপেক্ষা করতে হবে। আপনি যে কোনও পরিস্থিতি নিয়েই অনেক বেশি বিচার-বিশ্লেষণ করতে বসেন, যার ফলে আপনাকে সমস্যায় পড়তে হয়। নরম মনোভাবাপন্ন, কম্প্রোমাইসিং, সতর্ক, সংগঠিত, জেদি, শান্ত, সহানুভূতিশীল, লয়াল, আত্মবিশ্বাসী, উদার, চালাক, জ্ঞানী, স্মৃতিশক্তি ভালো। কেউ সমালোচনা করলে তাঁকে আটকাতে পারেন। অন্যকে মোটিভেট করতে পারেন। খেলাধুলো এবং বিলাসিতা পছন্দ করেন। নিজের আবেগ সহজে প্রকাশ করেন না। অত্যন্ত চুজি, বিশেষত খুব বাছাই করা সম্পর্কে নিজেকে আবদ্ধ রাখেন।

অক্টোবর:- আপনি খুব ভাগ্যবান। কোনও লক্ষ্য নির্ধারণ করলে, তা হাসিল করে নেন। তবে আপনার স্বভাবের খারাপ দিক হল, আপনি কথায় কথায় খুব তর্ক করেন। প্রতারিত করার এবং প্রতিশোধ নেওয়ার প্রবণতাও আপনার মধ্যে থাকে। নিজের মনের দস্যুকে মারতে পারলে, কল্পনাতীত সাফল্য অর্জন করতে পারবেন আপনি। নিজস্ব ক্ষেত্রে নেতৃত্বদানের ক্ষমতা আপনার মধ্যে আছে। কথা বলতে ভালোবাসেন, মাঝেমধ্যেই রেগে যান, বন্ধুদের গুরুত্ব দেন, নতুন বন্ধু বানাতে ভালোবাসেন, সহজে আঘাত পান আবার সহজেই সেখান থেকে বেরিয়েও আসেন, দিবাস্বপ্ন দেখেন, লয়াল, অন্যেরা কী ভাবলেন তা নিয়ে মাথা ঘামান না, আবেগপ্রবণ, নিষ্পত্তিমূলক, ভ্রমণপিপাসু, সাহিত্য ও শিল্প-কলা অনুরাগী, কোনও কিছুর ভান করেন না, সত্, জেলাস, সহজে আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন এবং প্রভাবিত হয়ে পড়েন। শিশুপ্রেমী।

নভেম্বর:- আপনি অপরের ভাবনাকে বুঝতে পারেন এবং সহজেই সকলের সঙ্গে মিশে যেতে পারেন। জীবনের প্রতি পজিটিভ দৃষ্টিভঙ্গী রাখেন। কিন্তু মাঝে মধ্যেই নিজের সেনসিটিভিটি নিয়ে এতটা উত্তেজিত এবং আনন্দিত হয়ে পড়েন যা, আপনার স্বাস্থ্যহানীর কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আপনি অন্যের জন্য উদাহরণস্বরুপ। আপনি খুব ভালো শিক্ষক। আপনার কাছে প্রচুর আইডিয়া থাকে, তবে আপনার মনের গভীরে উঁকি মারা খুব শক্ত, প্রগতিশীল এবং তীক্ষ্ণ চিন্তাভাবনা করেন আপনি। ভালো চিকিত্সক হতে পারেন। ব্যক্তিত্বও অত্যন্ত গতিশীল। কৌতূহলী, কম কথা বলেন, সাহসী, উদার, ধৈর্য রাখতে পারেন, জেদি, কঠোর হৃদয়ের মানুষ আপনি। সহজে হার মানেন না। সহজে রাগেন না, একা থাকতে ভালোবাসেন। অন্যের থেকে চিন্তাভাবনা আলাদা।

ডিসেম্বর:- আপনি উদার, সেক্সি, দেশপ্রেমী, খেলাধুলোয় সক্রিয়, অ্যাম্বিশিয়াস, সত্, বিশ্বাসী। এই মাসে যাঁদের জন্ম, তাঁরা মেলামেশা করতে, প্রশংসা শুনতে ভালোবাসেন। আপনার ব্যক্তিত্ব পরিবর্তনশীল, প্রতিবন্ধকতা পছন্দ করেন না। এই মাসে যাঁদের জন্ম, তাঁরা অ্যাস্থমা বা অ্যালার্জিতে আক্রান্ত থাকেন।
এই গুলো যে অনুমানের উপর ভিত্তি করে তৈরী করা এটা হয়ত আপনরা সকলেই জানেন। দেখবেন, এক দিকে কিছু কিছু মিলেছে তো অন্য দিকে মিলে নি। তাই বাস্তবতা হলো আল্লাহর উপর ভরসা করে নিজের পরিশ্রমের মাধ্যমে সামনে এগিয়ে যাওয়া। কারণ আল্লাহ সবাইকেই কাজ করার জন্য হাত দিয়েছেন , চলার জন্য পা দিয়েছেন আর চিন্তা করার জন্য দিয়েছেন একটা অতুলনীয় সুপার কম্পিউটার মাথা। তাই নিজের উপর আস্থা বাড়ান এবং পরিশ্রমের মাধ্যমে নানান গুনাগুন অর্জনের চেষ্টা করে যান তাহলেই সাফল্য পাবেন। কারণ আমি এক জোতিষীকে রাশিফল এবং সংখ্যাতত্ত্ব সম্পর্কে জিগ্যেস করেছিলাম। তিনি বলেছিলেন এই গুলো শুধু আশা ছাড়া আর কিছুই নয়। ভাবুন এবার বিষয়টা কি। জোতিষী বলবেন, আপনি শুনবেন আর মনে মনে আশাবাদী হবেন। এটুকুই। ভালো থাকবেন সবাই। 

অঙ্কশাস্ত্র জন্ম-মাস দেখে মানুষের স্বভাব-চরিত্রের ধারণা দেয় ডাক্তার আবুল হাসান 5 of 5
অঙ্কশাস্ত্র মতে একজন মানুষের স্বভাব, চরিত্র নাকি তার জন্ম মাস বিচার করে জানা যায়। কোন মাসে জন্মালে, কেমন হবে তার চারিত্রিক গুনাবলী এই গুলো...

সকল আপডেট পেতে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন আমাদের সাথে।

ডাঃ হাসান (ডিএইচএমএস, পিডিটি - বিএইচএমসি, ঢাকা)

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ, ঢাকা

যৌন ও স্ত্রীরোগ, চর্মরোগ, কিডনি রোগ, হেপাটাইটিস, লিভার ক্যান্সার, লিভার সিরোসিস, পাইলস, IBS, পুরাতন আমাশয়সহ সকল ক্রনিক রোগে হোমিও চিকিৎসা নিন।

১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- ০১৭২৭-৩৮২৬৭১ এবং ০১৯২২-৪৩৭৪৩৫
ইমেইল:adhunikhomeopathy@gmail.com
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।

পুরুষদের যৌন সমস্যার কার্যকর চিকিৎসা

  • শুক্রতারল্য এবং অকাল বা দ্রুত বীর্যপাত
  • প্রস্রাবের সাথে ধাতু ক্ষয়, প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া
  • পায়খানার সময় কুন্থনে বীর্যপাত
  • পুরুষাঙ্গ দুর্বল বা নিস্তেজ এবং বিবাহভীতি
  • রতিশক্তির দুর্বলতা এবং দ্রুত বীর্যপাত সমস্যা
  • বিবাহপূর্ব হস্তমৈথন ও এর কুফল
  • অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ সমস্যা
  • বিবাহিত পুরুষদের যৌন শিথিলতা
  • অতিরিক্ত শুক্রক্ষয় হেতু ধ্বজভঙ্গ
  • উত্তেজনা কালে লিঙ্গের শৈথিল্য
  • সহবাসকালে লিঙ্গ শক্ত হয় না
  • স্ত্রী সহবাসে পুরুপুরি অক্ষম

স্ত্রীরোগ সমূহের কার্যকর হোমিও চিকিৎসা

  • নারীদের ওভারিয়ান ক্যান্সার
  • জরায়ুর ইনফেকশন ও ক্যান্সার
  • নারীদের জরায়ুর এবং ওভারিয়ান সিস্ট
  • ফলিকুলার সিস্ট, করপাস লুটিয়াম সিস্ট
  • থেকা লুটেন, ডারময়েড, চকলেট সিস্ট
  • এন্ডোমেট্রোয়েড, হেমোরেজিক সিস্ট
  • পলিসিস্টিক ওভারি, সিস্ট এডিনোমা
  • সাদাস্রাব, প্রদর স্রাব, বন্ধ্যাত্ব
  • ফ্যালোপিয়ান টিউব ব্লক
  • জরায়ু নিচের দিকে নামা
  • নারীদের অনিয়মিত মাসিক
  • ব্রেস্ট টিউমার, ব্রেস্ট ক্যান্সার