যৌন ও স্ত্রীরোগ, চর্মরোগ, কিডনি রোগ, হেপাটাইটিস, লিভার ক্যান্সার, লিভার সিরোসিস, পাইলস, IBS, পুরাতন আমাশয়সহ সকল ক্রনিক রোগে হোমিও চিকিৎসা নিন। ডাঃ হাসান, আধুনিক হোমিওপ্যাথি, যাত্রাবাড়ী, ঢাকা। ফোন করুন:- ০১৭২৭-৩৮২৬৭১

বৃহস্পতিবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০১১

কিশোর-কিশোরীদের বয়:সন্ধিকালের সমস্যা এবং সমাধানের উপায়

প্রতিটি মানুষের জীবনেই বয়:সন্ধিকাল আসে। শিশুকাল পেরিয়ে মানুষ যখন যৌবনে পা রাখতে শুরু করেন সেই সময়টাকে ডাক্তারী বিজ্ঞানমতে বয়:সন্ধি কাল বলা হয়। সাধারণত ছেলেদের বয়:সন্ধিকাল হিসেবে ৯ থেকে ১৪ বছর পর্যন্ত বয়স এবং মেয়েদের ৮ থেকে ১৩ বছর পর্যন্ত বয়সটাকেই ধরা হয়। এ সময়ে ছেলে ও মেয়েদের মধ্যে শারীরিক ও মানসিক বিভিন্ন ধরনের পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। এসময় তারা তাদের চারপাশের সবকিছুকেই রঙিন বলে মনে করে। চোখের সামনে যা দেখে তাই তাদের ভালো লাগে। এ সময়টাতে চঞ্চল-দুরন্ত যুবক ছুটে বেড়ায় মাঠঘাট পেরিয়ে প্রান্তরে আর সদা প্রানোচ্ছল যুবতীর দেহমনে আসে ভয়, শঙ্কা ও লজ্জা।
এই সময়টাতে তরুণ-তরুণীরা চায় নিজেদের মতো করে বাঁচতে। ঠিক তখনই তাদের জীবনে নেমে আসে পরিবার ও সমাজের নানা ধরনের বাধা-বিপত্তি। সামাজিক ও পারিবারিক এসব বাধা-বিপত্তি তাদের জীবনের গতি পরিবর্তনে বিশেষ ভূমিকা রাখে। ছেলেদের চেয়ে মেয়েদের ক্ষেত্রে এসব বাধা-বিপত্তি অনেকটা বেশি পরিমাণে লক্ষ্য করা যায়। এই সময়টাতে মেয়েদেরকে চার দেয়ালের মধ্যে বেঁধে রাখা হয়। তবে কিশোরদের ক্ষেত্রেও নানা ধরনের বাধা-বিপত্তি আসে। ফলে কিশোর-কিশোরীদের সুস্থ মানসিক বিকাশ মারাত্মকভাবে ব্যহত হয়। এভাবে তাদেরকে বেধে না রেখে সতর্ক দৃষ্টিতে খেয়াল রাখুন সে কার সাথে মিশছে, কোথায় যাচ্ছে, কী করছে। এগুলো সব ঠিকঠাক থাকলে তাকে তার মতো করে চলতে দেওয়াই ভালো।

এসময়টাতে কিশোর-কিশোরীদের আরও একটি সমস্যা হলো দ্বিধা-দ্বন্ধ, ভয় ও লজ্জা। এই সময়টাতে তারা নিজেদেরকে পরিবার ও সমাজের কাছ থেকে আড়াল করে নেয়। যার ফলে তারা তাদের নানা ধরনের শারীরিক ও মানসিক সমস্যা সম্পর্কে দ্বিধা-দ্বন্ধে ও ভয়ে পড়ে যায়। এটিও তাদের মানসিক ও শারীরিক বিকাশ ব্যহত করে থাকে। তাই এ থেকে তাদের বের করে আনার জন্য পরিবারের বড়দেরকেই এগিয়ে আসতে হবে।

বয়:সন্ধিকালে ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের শারীরিক পরিবর্তন একটু বেশি হয়। একেবারে অচেনা অজানা এসব পরিবর্তন দেখে তারা ভীতসন্তস্ত্র হয়ে পড়ে। ভয় ও লজ্জায় অনেকে এসব বিষয়ে পরিবারের কারো কাছে কিছু না বলে নিজের মধ্যেই সেগুলো লুকিয়ে রাখে। তাই পরিবারের বড়দের উচিত আগে থেকেই কন্যা সন্তানদের বয়:সন্ধি কাল সম্পর্কে খোলামেলা আলোচনা করা। তাদেরকে এই সময়ের নানা ধরনের শারীরিক পরিবর্তন সম্পর্কে অবহিত করা।

এসময়টাতে তারা নানা ধরনের আবদার করে থাকে। তাদের বেশিরভাগ কথা বার্তাতেই থাকে ন্যাকামি। পরিবারের উচিত যতটা সম্ভব তাদের এসব আবদার পূরণ করার চেষ্টা করা অথবা তাদেরকে খুব ভালোভাবে বুঝানো। তা না করে তাদের সাথে কিছুতেই খারাপ ব্যবহার করা যাবে না। তাদেরকে বোঝাতে হবে ভালো মন্দের পার্থক্য সম্পর্কে। তা না হলে এথেকে তারা না বুঝেই ভয়ংকর কোনো দুর্ঘটনা ঘটিয়ে ফেলতে পারে।

প্রতিটি অভিভাবকের উচিত বয়:সন্ধি কালে সন্তানদের নিয়ে অযথা বিড়ম্বনা না বাড়িয়ে বয়:সন্ধি কালে বন্ধু হয়ে সন্তানদের পাশে দাড়ানো। কেননা এই সময়টাই তার অঙ্কুরিত হওয়ার সময়। অঙ্কুরেই যাতে বীজ নষ্ট হয়ে না যায় সেদিকে সতর্ক দৃষ্টিতে খেয়াল রাখতে হবে।

বয়:সন্ধি কালের খাবার-দাবার :- বয়:সন্ধি কালে ছেলে-মেয়েদের শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তনের পাশাপাশি তাদের খাবার-দাবারের রুচিতে পরিবর্তন আসে। কিছুদিন আগেও যেই খাবার ছাড়া তাদের চলত-ই না এখন তারা সেসব খাবার দু চোখে দেখতে পারে না। এটাই স্বাভাবিক। এসময় ছেলে-মেয়েদের মধ্যে সময়মত খাবার না খাওয়া, ঘরের খাবারের চাইতে বাইরের খাবারের প্রতি বেশি আগ্রহী লক্ষ্য করা যায়। তাই ছেলে-মেয়েদের খাবার-দাবারের প্রতি অভিভাকদের আরও সচেতন হতে হবে। এই সময়ে পরিপূর্ণ পুষ্টির অভাব হলে তা সন্তানের স্বাভাবিক বিকাশ ব্যাহত হয়। তাই তাদের পছন্দসহ খাবারগুলোকে যতটা সম্ভব বাড়িতে নিজের মতো করে তৈরি করে দেওয়াই ভালো।

এসময় ছেলে-মেয়েদের যতটা সম্ভব সবুজ শাক-সবজি, ফলমূল, দুধ ও ডিম খাওয়াতে হবে। অনেক ছেলেমেয়ে দুধ, ডিম খেতে চায় না। তাদেরকে সরাসরি দুধ ও ডিম না দিয়ে দুধ ও ডিমের তৈরি বিভিন্ন ধরনের খাবার খাওয়ানো যেতে পারে। যেমন – ফিরনি, দই, সেমাই, পুডিং প্রভৃতি।

কিশোর-কিশোরীদের বয়:সন্ধিকালের সমস্যা এবং সমাধানের উপায় ডাক্তার আবুল হাসান 5 of 5
প্রতিটি মানুষের জীবনেই বয়:সন্ধিকাল আসে। শিশুকাল পেরিয়ে মানুষ যখন যৌবনে পা রাখতে শুরু করেন সেই সময়টাকে ডাক্তারী বিজ্ঞানমতে বয়:সন্ধি কাল বলা...

সকল আপডেট পেতে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন আমাদের সাথে।

ডাক্তার আবুল হাসান (ডিএইচএমএস - বিএইচএমসি, ঢাকা)

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ, ঢাকা

যৌন ও স্ত্রীরোগ, চর্মরোগ, কিডনি রোগ, হেপাটাইটিস, লিভার ক্যান্সার, লিভার সিরোসিস, পাইলস, IBS, পুরাতন আমাশয়সহ সকল ক্রনিক রোগে হোমিও চিকিৎসা নিন।

১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- ০১৭২৭-৩৮২৬৭১ এবং ০১৯২২-৪৩৭৪৩৫
ইমেইল:adhunikhomeopathy@gmail.com
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।

পুরুষদের যৌন সমস্যার কার্যকর চিকিৎসা

  • শুক্রতারল্য এবং অকাল বা দ্রুত বীর্যপাত
  • প্রস্রাবের সাথে ধাতু ক্ষয়, প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া
  • পায়খানার সময় কুন্থনে বীর্যপাত
  • পুরুষাঙ্গ দুর্বল বা নিস্তেজ এবং বিবাহভীতি
  • রতিশক্তির দুর্বলতা এবং দ্রুত বীর্যপাত সমস্যা
  • বিবাহপূর্ব হস্তমৈথন ও এর কুফল
  • অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ সমস্যা
  • বিবাহিত পুরুষদের যৌন শিথিলতা
  • অতিরিক্ত শুক্রক্ষয় হেতু ধ্বজভঙ্গ
  • উত্তেজনা কালে লিঙ্গের শৈথিল্য
  • সহবাসকালে লিঙ্গ শক্ত হয় না
  • স্ত্রী সহবাসে পুরুপুরি অক্ষম

স্ত্রীরোগ সমূহের কার্যকর হোমিও চিকিৎসা

  • নারীদের ওভারিয়ান ক্যান্সার
  • জরায়ুর ইনফেকশন ও ক্যান্সার
  • নারীদের জরায়ুর এবং ওভারিয়ান সিস্ট
  • ফলিকুলার সিস্ট, করপাস লুটিয়াম সিস্ট
  • থেকা লুটেন, ডারময়েড, চকলেট সিস্ট
  • এন্ডোমেট্রোয়েড, হেমোরেজিক সিস্ট
  • পলিসিস্টিক ওভারি, সিস্ট এডিনোমা
  • সাদাস্রাব, প্রদর স্রাব, বন্ধ্যাত্ব
  • ফ্যালোপিয়ান টিউব ব্লক
  • জরায়ু নিচের দিকে নামা
  • নারীদের অনিয়মিত মাসিক
  • ব্রেস্ট টিউমার, ব্রেস্ট ক্যান্সার