⭆যৌন ও স্ত্রীরোগের স্থায়ী, আধুনিক ও সফল হোমিওপ্যাথিক চিকিত্সা⭅
পুরুষদের যৌন দুর্বলতা, দ্রুত বীর্যপাত, পুরুষত্বহীনতা, ধ্বজভঙ্গ, অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ, স্পারম্যাটোরিয়া, হস্তমৈথুন অভ্যাস ও এর কুফল, লিঙ্গের অসারতা, সিফিলিস, গনোরিয়া ইত্যাদি, নারীদের জরায়ু সংক্রান্ত ব্যাধি, স্তন টিউমার/ক্যান্সার, বন্ধ্যাত্ব ও অন্যান্য স্ত্রীরোগসমূহের আধুনিক ও সফল হোমিওপ্যাথি চিকিত্সা।
যোগাযোগ: ডাক্তার আবুল হাসান; ডি. এইচ. এম. এস (বি. এইচ. এম. সি),
১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪,
ফোন :০১৭২৭-৩৮২৬৭১ ০১৯২২-৪৩৭৪৩৫

লিঙ্গের সাইজ বা আকৃতি বাড়াতে হোমিওপ্যাথিক চিকিত্সা

আপনিও লাইক দিন !

অনেকেই আছেন এমন যারা বড় লিঙ্গকে গৌরবের বিষয় মনে করেন। কিন্ত একটা কথা জেনে রাখা ভালো যে সহবাসের ক্ষেত্রে লিঙ্গের সাইজ বা আকৃতি কোনো সমস্যাই সৃষ্টি করে না, লিঙ্গের যাবতীয় কার্যাবলী ঠিক থাকলে সাইজ বা আকৃতি কোনো গুরুত্বই বহন করে না। কিন্ত পরুষতান্ত্রিক সমাজে আমরা বসবাস করি বলে আমাদের ধারনাটাই এ রকম হয়ে গেছে যে লিঙ্গের সাইজ বড় হতে হবে।

তবে হাঁ দীর্ঘদিন অতিরিক্ত হস্তমৈথুন বা অন্য কোনো বদ অভ্যাসের কারণে অনেকেরই লিঙ্গের সাইজ বা আকৃতি কিছুটা ছোট হয়ে যেতে পারে। তার যথাযথ হোমিওপ্যাথিক চিকিত্সা বিদ্যমান। কিন্তু সেটা পুরুপরিই নির্ভর করে একজন হোমিওপ্যাথের চিকিত্সা জ্ঞান এবং দক্ষতার উপর। তাই হস্তমৈথুন অভ্যাস এবং এসংক্রান্ত যাবতীয় কুফল দূর করতে অভিজ্ঞ একজন হোমিওপ্যাথের সাথে কথা বলুন এবং চিকিত্সা নিন। দেখবেন খুব তাড়াতাড়িই সব সমস্যা দূর হয়ে গেছে আর আপনি আবার সুস্থ এবং স্বাভাবিক জীবন উপভোগ করতে পারছেন। তার জন্য বার বার ঔষধ খাওয়ারও প্রয়োজন হচ্ছে না। কারণ হোমিওতে যেটা একবার ভালো হয় সেটা আর দ্বিতীয় বার দেখা দেয় না

আপনি পেনিসের আকার বাড়ানোর জন্য অনলাইন সার্চ করে বা ফেইসবুকে হাজারো বিজ্ঞাপন পাবেন - পেনিস এন্লার্জার ক্রিম, মেসেজ অয়েল, বড়ি, কেপসূল ইত্যাদি...... ইত্যাদি....... ..............আরো যে কত কি ?????
-- ভিডিওতে দেখুন --
কিন্তু এগুলো আদৌ কি কোনো ফল দেয় ?? ভালো করে শুনে রাখুন। পৃথিবীতে আজ পর্যন্ত কোনো মেডিকেল সাইন্সই পেনিস বড় করার জন্য কার্যকর কোনো মেডিসিন তৈরী করতে পারে নি। যদি সত্যিই পেনিস বড় করার জন্য কোনো মেডিসিন বা ক্রিম বা অয়েটমেন্ট থাকত তাহলে আমাদের দেশের তথা সারা পৃথিবীর নামী-দামী ঔষধ কোম্পানিগুলি সেই মেডিসিন বা ক্রিম বা অয়েটমেন্ট প্রস্তত করে বাজারজাত করত আর ডাক্তাররাও সেগুলি তাদের রোগীদের জন্য প্রেসক্রাইব করত আর আপনিও সেটা আপনার বাড়ির পাশের ঔষধের ফার্মেসি থেকে কিনতে পারতেন। বিষয়টি একবার ভেবে দেখবেন।

এখন আসুন আসল বিষয়ে আসি। তাহলে ঐ হার্বাল, ভেষজ কবিরাজরা কেমন করে পেনিস বড় করার ঔষধ বানালো ?? শুনে রাখুন, তারাও সেটা বানাতে পারে নি। এটা সরাসরি প্রতারণা। কারণ তারা আপনার দুর্বল মানুষিক অবস্থার সুযোগ নিয়ে আপনাকে প্রতারিত করেছে মাত্র। আর আপনিও খুব সহজেই গোপনে গোপনে তাদের ফাদে পা দিচ্ছেন এবং তাদের মালিশ, বড়ি, ঔষধ ইত্যাদি ইত্যাদি কিনে ব্যবহার করছেন। 

ওদের ঔষধে এমন কিছু উপদান মিশানো থাকে যা  অতি অল্প সময়ে পেনিসের স্নায়ুকে উত্তেজিত করে তুলে তখন আপনার কাছে মনে হবে আপনার পেনিস বড় হচ্ছে। অথচ আপনি আসল সত্যটা জানেনই না যে, স্বাভাবিক পেনিস কখনো বড় বা ছোট হয়ে যেতে পারে না। অর্থাৎ আপনার পেনিস আগে যেমনটি ছিল এখনো এমনি আছে। শুধু উত্তেজিত অবস্থায় আপনি ভালো করে লক্ষ্য করেছেন বলে আপনার কাছে এমনটা মনে হচ্ছে।

কিছু দিন পর যখন আপনি তাদের ঔষধ সেবন করা বন্ধ করে দিবেন তখন আগের মতই মনে হবে। কিন্তু এই যে আপনি প্রতারিত হলেন এটা এখন কাউকেই বলতে পারছেন না। মনে হয় আর বিস্তারিত বিশ্লেষণ করে বুঝানোর প্রয়োজন নেই। সতর্ক হন !! অযথা চিকিত্সকের পরামর্শ ছাড়া রাস্তা ঘাট থেকে ঐসব আজে বাজে হারবাল, কবিরাজি, ভেষজ নামধারী উত্তেজক ঔষধ ব্যবহার করে করে আপনার যৌন জীবন বিপর্যস্থ করে তুলবেন না। কারণ একসময় দারুন পস্তাতে হবে, তখন আর কিছুই করার থাকবে না। যারা যৌন উত্তেজক প্রোডাক্ট নিয়মিত সেবন করে তাদের ক্ষেত্রে আমরা দেখেছি একসময় ঐগুলি সহ ঐ সংক্রান্ত আর কোনো ঔষধই শরীরে কাজ করে না। 

উত্তেজিত অবস্থায় পুরুষ লিঙ্গের গড় দৈর্ঘ্য হয়ে থাকে 4.7 থেকে 6.3 ইঞ্চি। অনেকের মতে পেনিসের গড় দৈর্ঘ্য ৫.১-৫.৯ ইঞ্চি। কিন্তু আপনার লিঙ্গ বা পেনিস যদি লম্বায় সর্বনিম্ন 4 (চার) ইঞ্চিও হয়ে থাকে তাহলেও আপনার স্ত্রীকে তৃপ্তি দেয়ার জন্য এটুকুই যথেষ্ট। কারণ একটা Successful Sexual Intercourse শুধু মাত্র পেনিসের আকারের উপর নির্ভর করে না, এর জন্য আপনাকে যৌন মিলনের নানা কলা কৌশল রপ্ত করা উচিত। মনে রাখবেন নারীদের যৌনাঙ্গে এক প্রকার খাজ কাটা থাকে যাতে ঘসা লাগলে তারা আনন্দ পায়। তার জন্য মাত্র ১০-১২ বছরের ছেলেদের লিঙ্গ দিয়েও তাদের আনন্দ দেয়া সম্ভব। বিরাট লম্বা পেনিসের কোনই প্রয়োজন নেই।

আপনি লিঙ্গ বড় করা সংক্রান্ত যত প্রকার বিজ্ঞাপন দেখে থাকবেন এই গুলির অধিকাংশেরই কোনো প্রকার বৈধতা নেই এক কোথায় ভুয়া চিকিত্সা বানিজ্য । লক্ষ্য করে দেখবেন তাদের বিজ্ঞাপন গুলোতে কোমলমতি তরুনদের আকৃষ্ঠ করার জন্য নানা প্রকার অশ্লীল ছবি জুড়ে দেয়। তাদের কোনো ঠিকানা দেয়া থাকে না আর থাকলেও সেটা নকল। তারা শুধু মাত্র ফোন নম্বর দিয়ে রাখে। এসব দেখেও যদি আপনার চোখ না খোলে আর লোভে পড়ে ফাদে পা বাড়ান তাহলে আপনার ক্ষতির জন্য আপনিই দায়ী। পুলিশের একজন উপ - পরিদর্শক যিনি আমাদের একজন শুভাকাঙ্খী (আমাদের পাশেই থাকেন এবং সুযোগ পেলেই গল্প গুজব করতে আসেন)। তিনি আমাদের সাথে বিষয়টি নিয়ে খুলাখুলি আলোচনা করেছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে কোন অ্যাকশন নেয়া যায় কিনা। আমরা তাকে বলেছিলাম যেখানে ঔষধ প্রশাসন নিরব, যেখানে টিভিতে রং ফর্সাকারী ভুয়া ক্রিমের বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতিনিয়ত মানুষকে প্রকাশ্য দিবালোকে প্রতারিত করা হচ্ছে আর প্রশাসন তো দুরে থাক কেউ তার বিরুদ্ধে টু শব্দটি পর্যন্ত করছে না সেখানে তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন নিয়ে আপনারা কতটুকু আগাবেন, তার চেয়ে এ বিষয়ে জনগনকে সচেতন করে তুলাই উত্তম একদিন দেখবেন জনগনই তাদের বিচার করবে। 

ঐসব লোকজন হারবাল, ভেষজের দোহাই দিয়ে গোপনে তরুণ-যুবকদের দুর্বল মানুষিকতাকে কাজে লাগিয়ে প্রতারণার ব্যবসা করে মাত্র। আর প্রতিদিন হাজার হাজার তরুণ-যুবক প্রকৃত সত্যটা না জানার কারণে তাদের ফাদে পা দিচ্ছে আর প্রতারিত হচ্ছে। আরেকটা কথা বলে রাখি, দীর্ঘদিন হস্তমৈথুন অভ্যাসের কারণে স্নায়ুমন্ডলী যখন নিস্তেজ হয়ে যায় তখন তার সতেজতার জন্য আমাদের দেশের সুপরিচিত একটি আইয়র্বেদিক প্রতিষ্ঠানের কিছু প্রডাক্ট রয়েছে যে গুলো দামেও অনেক সস্থা সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন। এর জন্য বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন। কিন্তু মনে রাখবেন এটা আপনার লিঙ্গের আকার বাড়াবে না। দীর্ঘদিন হস্তমৈথুনের কুফল জনিত কারণে নিস্তেজ স্নায়ুমন্ডলীকে আবার সতেজ করবে মাত্র। 

No comments:
Write comments
Recommended Posts × +